সেই মেয়েটা…সঙ্গে তাহসান!

0
1625

রাজধানী বসুন্ধারার তিনশ ফুট এলাকা। বাজারের কাছের মূল সড়ক পথ পাড়ি দিচ্ছি। আর তখনই মেয়েটির সাথে কথার সূচনা। প্রসঙ্গক্রমে জানা গেল নাম প্রীতি। তার সাথে কথার কারণও বলা যাক-তারা দুজন বান্ধবী মিলে শুটিংয়ের গল্প করতে করতেই রাস্তা পার হচ্ছিলেন। আর কৌতূহল হয়েই তাদের সাথে শুটিংয়ের প্রসঙ্গ ধরে কথা বলা শুরু করলাম।

যদিও তখন আমরাও শুটিং লোকেশন খুঁজে বেরাচ্ছি। কথা প্রসঙ্গে জানা গেল, স্কুল শেষ করে গত বছরই  কলেজের আঙিনায় পা দিয়েছেন প্রীতি। আর জানালেন, বাজার সংলগ্ন প্রধান সড়কের ঠিক উল্টো দিকেই শুটিং হচ্ছে। তিনি শুধু বললেন, তার প্রিয় দুই অভিনেতা-অভিনেত্রী তাহসান ও মিম সেখানে শুটিং করছেন। কিন্তু বাজারে যাওয়ার পথে তাদের শুধু দূর থেকেই একপলক দেখার সুযোগ হয়েছিল।

তখনই মনস্থির করেছিলেন ফেরার পথে যে করেই হোক কিছুক্ষণ শুটিং দেখেই বাড়ি ফিরবেন। আর পাশের চায়ের দোকান থেকে কাগজ আর কলম সংগ্রহ করে অটোগ্রাফ নিবেন। এমন গল্প করতে করতেই তার দেখানো পথ ধরেই শুটিং লোকেশনের দিকে আমরা যাচ্ছি। একটু সামনে যেতেই ঠাওর করা গেল শুটিংয়ের সরঞ্জাম আশেপাশে ছড়ানো ছিটানো রয়েছে। কিন্তু তারপরও তীব্র গরমে ভ্রম কেটে মনে মনে প্রশ্ন জাগল, আসলে কি সঠিক জায়গায় এসেছি?

আর আশেপাশে তাকিয়ে অনেকটা শরনার্থী শিবিরের মতোই মনে হলো। মানে ঘূর্ণিঝড় দুর্গত এলাকায় এসেছি। পাখির ডানায় চোখ বুলিয়ে নিতেই দেখা গেল-বেশ কয়েকটি তাবুর ঘর, হারিকেন, ত্রান সামগ্রী, শরনার্থী শিবিরের বিছানা থরে থরে সাজানো। কিন্তু না, শুটিংয়ের বিরতিতে বিষয়টি খুলে বললেন টেলিফিল্মের পরিচালক মিজানুর রহমান আরিয়ান।

তিনি বললেন, ‘এখানে ‘সেই মেয়েটা’ টেলিফিল্মের শুটিং চলছে। আর এর জন্যই এত আয়োজন। এতে প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করছেন তাহসান ও মীম। এতে আরও অভিনয় করেছেন আনন্দ এবং ৩০০ ফুট সংলগ্ন এলাকাবাসী। আর চিত্রনাট্য লিখেছি আমি নিজেই। ঈদের তৃতীয় দিন রাত ১১টা ৪৫ মিনিটে এটি আরটিভিতে প্রচার হবে।’

টেলিফিল্মটির গল্পে দেখা যাবে, অরণী ও হিমেল। তারা দুজনেই ঢাকায় থাকেন। দুজনই ভীষণ পরোপকারী। অরণী পেশায় চিকিৎসক। যে কোন বিপদে তারা দুজন সাধারণ মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়ান। একটা সময় তাদের মধ্যে দারুণ বন্ধুত্বের একটি সম্পর্ক গড়ে উঠে। সেখান থেকে প্রেম। এরপর বিচ্ছেদ। তারপর তাদের মধ্যে দীর্ঘদিন যোগাযোগ নেই।

এদিকে কাল বৈশাখী এক ঝড়ে রসূলপুর নামে একটি গ্রামের সবকিছু লণ্ড-ভণ্ড করে দিয়ে যায়। তখন সেখানে স্বেচ্ছায় চিকিৎসা সেবা দিতে আসেন অরণী। এছাড়ও কয়েকজন চিকিৎসক আসেন। সেই সাথে আসেন হিমেলের মতো কয়েকজন স্বেচ্ছাসেবক। এখানেই এসেই ফের দেখা হয়ে যায় হিমেলের সঙ্গে। যদিও ততদিনে অরণী নতুন সঙ্গী জুটিয়ে ফেলেছেন। শরনার্থী শিবিরে তাদের দেখা হওয়ার পর থেকেই ঘটতে থাকা নানা ঘটনায় এগিয়ে যায় টেলিফিল্মটির গল্প। পাঠক বাকিটা দেখতে চোখ রাখতে হবে টিভির পর্দায়।

গায়ক তাহসানকে এবার ঈদে ছয়টি নাটকে অভিনয় করতে দেখা যাবে। গত চার বছর ধরে নিয়মিত বড় উৎসব কিংবা দিবসভিত্তিক নাটকে অভিনয় করেছেন তিনি। তবে এবার ঈদের নাটকে কাজ করার ক্ষেত্রে তিনি ভিন্ন উপায় অবলম্বন করেছেন। এবার ঈদে তাহসান যেসব নির্মাতার নাটকে অভিনয় করছেন তাঁরা হলেন, শিহাব শাহীন, মিজানুর রহমান ও তানিম রহমান।

এছাড়া বিদ্যা সিনহা মিমও নিজেকে চলচ্চিত্রে থিতু করেছেন। এর পাশাপাশি ছোট পর্দায় বিভিন্ন বিজ্ঞাপনচিত্রে তাঁকে নিয়মিত দেখা গেলেও নাটকে বছর-দুই ধরে অনুপস্থিত। সর্বশেষ বছর দুয়েক আগে তাঁকে দেখা গিয়েছিল মাহমুদ দিদারের স্বৈরাচার নাটকে। এদিকে খুব শিগগিরই মিম অনন্য মামুনের পরিচালনায় ‘আমি তোমার হতে চাই’ সিনেমার শুটিং শুরু করবেন।

– See more at: http://www.priyo.com/2016/Jun/05/219787#sthash.7Z90c4GZ.dpuf

LEAVE A REPLY